January 31, 2023

indowall.net

বাংলাদেশের নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম সম্পর্কে বাংলা ব্লগ

প্রিন্টার মেশিনের দাম

প্রিন্টার মেশিনের দাম

ওয়ালটন,EPSON,HP প্রিন্টার মেশিনের দাম

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড বাজারে নিয়ে আসছে নতুন ক্যাটাগরির পণ্য প্রিন্টার। ‘প্রিন্টন’ প্যাকেজিং এ প্রাথমিকভাবে ২টি মডেলের লেজার প্রিন্টার গ্রাহকদের জন্য ছাড়বে ওয়ালটন। অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ওয়ালটন প্রিন্টারে রয়েছে দ্রুতগতির ওয়ারলেস প্রিন্টিংসহ বিভিন্ন সুবিধা।

জানা গেছে, ওয়ালটনের নতুন প্রিন্টার দুটির মডেল প্রিন্টন পিএমএফ২২ এবং প্রিন্টন পিএস২২ । এর মধ্যে পিএমএফ২২ মডেলটি মাল্টি ফাংশন সুবিধাযুক্ত। অর্থাৎ প্রিন্টের পাশাপাশি স্ক্যান এবং ফটোকপি করা যাবে। এর মূল্য ১৬হাজার ৭৫০ টাকা। পিএস২২ মডেলটি সিঙ্গেল ফাংশনের। এতে প্রিন্ট করা যাবে। এই প্রিন্টারটির দাম ১১,৭৫০ টাকা।

আরো পড়ুন – গিজারের দাম ২০২২

ওয়ালটনের প্রিন্টারের প্রধান বিশেষত্ব হচ্ছে ২২ (এ ফোর) এবং ২৩ (লেটার) পিপিএম প্রিন্ট স্পিড। অর্থাৎ অত্যন্ত দ্রুত প্রয়োজনীয় সকল ডকুমেন্ট প্রিন্ট করে। এছাড়া উভয় মডেলেই ১২০০ ইনটু ১২০০ ডিপিআই রেজ্যুলেশন, ৬০০ মেগাহার্টজ প্রসেসর এবং ১২৮ মেগাবাইট মেমোরি রয়েছে। এই প্রিন্টার দুটিতে ইউএসবি ক্যাবল সংযোগের মাধ্যমে প্রিন্ট করা ছাড়াও ওয়ারলেস প্রিন্টিং এর সুবিধা রয়েছে। এছাড়া মাল্টি ফাংশন প্রিন্টারটিতে নেটওয়ার্ক প্রিন্টিং এর সুবিধা রয়েছে; যা কর্মক্ষেত্রে ব্যবহারকারীদের বিশেষ সুবিধা দেবে।

ওয়ালটন প্রিন্টারের প্রোজেক্ট ম্যানেজার মো. শাহিদুজ্জামান বলেন, “আমাদের প্রিন্টারে ‘ওয়ান-স্টেপ ইন্সটলেশন’ অপশন দেওয়া হয়েছে, যার দ্বারা মাত্র এক ক্লিকেই খুব সহজে এর ড্রাইভার পিসিতে ইন্সটল করা যাবে। এই ডিভাইসের প্রতিযোগিতামূলক দাম এবং ফিচার সবার জন্য প্রিন্টার ব্যবহার আরও সহজতর এবং সাশ্রয়ী করতে সক্ষম হবে।‘

বিভিন্ন মোডে বিভিন্ন সাইজের কাগজ প্রিন্ট করার সুবিধা থাকায় প্রিন্টারগুলো সব শ্রেণীর গ্রাহকদের জন্য বেশ সহায়ক হবে বলে মনে করেন ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের কম্পিউটার এবং আইটি এক্সেসরিজের প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা মো. তৌহিদুর রহমান রাদ। তার মতে ওয়ালটনের প্রিন্টারগুলো কর্পোরেট অফিস, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমনকি ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য দারুণ নির্ভরযোগ্য।

আরো পড়ুন – গোল্ডেন বুটের দাম জানেন?

এছাড়াও প্রিন্টারগুলোয় ব্যবহারের জন্য নির্দিষ্ট মডেলের টোনার বাজারে এনেছে ওয়ালটন। ১,৯৮৫ টাকা মূল্যের টিএন১৬ মডেলের এই টোনারটি ওয়ালটনের ২টি প্রিন্টারেই ব্যবহার উপযোগী।

আরও পাওয়া যাবে টোনারের রিফিল ৬৫ গ্রামের কিট। যার মূল্য মাত্র ৬৫০ টাকা। অর্থাৎ ওয়ালটন প্রিন্টারের গ্রাহকরা দীর্ঘদিন পর্যন্ত ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় টোনার এবং রিফিলও ওয়ালটন শোরুম থেকেই পাবেন।ওয়ালটনের এই প্রিন্টার দুটিতে থাকছে ১ বছর পর্যন্ত ওয়ারেন্টি সুবিধা।

৩,০০০ থেকে ৬,৫০০ টাকায় এই আপনি সিঙ্গেল ফাংশন ইঙ্কজেট প্রিন্টার পাবেন। কিন্তু এই মূল্যের মডেলগুলো অনেক স্লো হবে ও ফিচার থাকবেনা বল্লেই চলে। এর কালি ব্যয়বহুল হবে। তাছাড়া এগুলোতে সবুজে নীল, ম্যাজেন্টা এবং হলুদের সমন্বয়ে ট্রাইকালার কার্তুজ আছে যাতে একটি কালার শেষ হয়ে গেলে পুরো কার্তুজ পরিবর্তন করতে হয়। EPSON প্রিন্টার। খুবই ছোট আকারের এই প্রিন্টারটিতে চারটি Individual Cartridge ব্যবহার হয়েছে। যার বর্তমান মূল্য 5200 টাকা।

আরো পড়ুন – বাজাজ মোটরসাইকেলের দাম ২০২২

২০০০০ টাকার মধ্যে সবচেয়ে ভালো প্রিন্টার

১২,০০০-১৪০০০ টাকায় আপনি অটো ডুপ্লেক্সিং ও উন্নত ইঙ্ক অপশনের মডেলগুলো পাবেন। তাছাড়া এই মূল্যে ব্যাসিক মোনোক্রম প্রিন্টার পাওয়া গেলেও তা পূর্ববর্তী মডেলগুলোর তুলনায় কার্যকরী। এই রেঞ্জের প্রিন্টারগুলোতে যথেষ্ট গতি আছে। বেশিরভাগ মডেলে ওয়াই-ফাই থাকার সম্ভাবনা আছে। HP LaserJet Pro P1102 এর মুল্য বর্তমানে 13,500 টাকা, বাজারে এই মডেলের প্রিন্টারটি যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে, প্রিন্টিং কোয়ালিটি খুবই ভালো।

Epson L130 কিনতে পারেন, দাম ১৬-১৮ হাজার এর মধ্যে পাবেন। ৪ কার্টিজের প্রিন্টার, খারাপ না। ছোটখাটো ব্যবসা চালাতে পারবেন, তবে ফটোস্টুডিও চালাতে হলে ৬ কার্টিজের L805 কিনে নিবেন, চাইনিজটার দাম ২৮-৩০ হাজার আর তাইওয়ানের-টা ৩৫-৩৭ হাজার টাকার মধ্যে পাবেন। L805 কিনলে মনে করুন কয়েক বছরের জন্যে আর প্রিন্টারের চিন্তা করতে হবেনা, জাস্ট রিফিলের সময় অরিজিনাল ইনক লোড করলে বছরের পর বছর যাবে এই প্রিন্টারে।